সুপারস্টার খুঁজলে হিরো আলমকে হাজির করছে গুগল

জায়ান্ট সার্চ ইঞ্জিন গুগল। আপনি কী চান? মুহূর্তেই গুগল তা জানিয়ে দেবে। যাদের সবচেয়ে বেশি গুগলে খোঁজা হয় তাদেরই গুগল এগিয়ে রাখে। গুগলের ফিল্টার এমনই। যার প্রতি মানুষের আগ্রহ বেশি থাকবে, তাকেই আগে দেখাবে। এ ধরনের প্রতিষ্ঠান প্রায়ই বলে থাকে, তারা ব্যবহারকারীদের আগ্রহকে গুরুত্ব দিয়ে ব্যবসা করে।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো হিরো আলমকে যতটা প্রাধান্য দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করে, তা আর কোনো বাংলাদেশি তারকাকে প্রাধান্য দিয়ে সংবাদ করে না। এতে করে ভারতীয় বাঙালিদের ডিভাইসগুলোতে হিরো আলম প্রাধান্য পেয়ে যান। এমনকি বাংলাদেশের শীর্ষ তারকাদের খুবই সীমিত সংবাদ আসে ওইসব গণমাধ্যমে।

এবার গুগলে ‘বাংলাদেশ ফিল্ম সুপারস্টার (Bangladesh Film Superstar)’ লিখে সার্চ করতে গেলে হিরো আলমকে নিয়ে তৈরি করা দুটি কনটেন্ট প্রথমে দেখা যাচ্ছে। আজ রবিবার বিকেল ৫টায় এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গুগলে Bangladesh Film Superstar লিখে সার্চ করলে সবার ওপরে হিরো আলমকে দেখায়। যদি ইমেজ ও ভিডিওতে কাস্টমাইজ করা হয়, সেখানেও হিরো আলম শীর্ষে। অবাক করার বিষয় হলো, এই দুটির একটিও হিরো আলমের পেজ কিংবা ইউটিউব চ্যানেল থেকে পোস্ট করা হয়নি।

রবিবার গুগলে ‘Bangladesh Film Superstar’ লিখে সার্চ দিলে নিউজপয়েন্টটিভি নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে হিরো আলমকে নিয়ে তৈরি করা ভিডিও প্রথমে দেখা গেছে। ২০১৬ সালের ১৫ ডিসেম্বর ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। এখন পর্যন্ত সাড়ে পাঁচ লাখের বেশিবার ভিউ হয়েছে। চ্যানেলটির অ্যাবাউটে ‘ভারত সরকারের ডিজিটাল কনটেন্ট এজেন্সি’ লেখা আছে।

দ্বিতীয় ভিডিওর লোকেশনও ভারতে। খুশ বায়ারওয়া নামের এক যুবকের ব্যক্তিগত চ্যানেল থেকে ভিডিওটি পোস্ট করা। বাংলায়ও প্রায় একই অবস্থা। ‘বাংলাদেশি সুপারস্টার’ লিখে সার্চ দিলে ভিডিও অপশনে হিরো আলমকে নিয়ে তৈরি করা কনটেন্ট সবার আগে দেখা যাচ্ছে। আর বাঁ’দিকে আসছে শাকিব খানের উইকিপিডিয়ার পেজ। হিরো আলম সম্প্রতি তাঁর ছবি মুক্তি দিয়েছেন। গুগলের তথ্য বলছে, ছবিটি প্রকাশের পর গত সাত দিনে অন্তর্জালে তার আধিপত্য বেড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *